বিলটিন ২০ মি.গ্রা. এর কাজ কি - Biltin 20 এর কাজ কি

বিকোজিন খেলে কি মোটা হয়প্রিয় পাঠক আপনাদের অনেকের জানা নেই Biltin 20 mg এর কাজ-Biltin 20 এর কাজ কি এবং সেই সম্পর্কে বিস্তারিত। তাই আপনার ও যদি এমন প্রশ্ন থাকে তাহলে আমার আজকের এই আর্টিকেলটি মন দিয়ে পড়ুন। কেননা আমার আজকের এই আর্টিকেল এর মূল বিষয় হলো Biltin 20 mg এর কাজ-Biltin 20 এর কাজ কি তা নিয়ে আমার এই বিস্তারিত আলোচনা। তো আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট না করে চলুন শুরু করা যাক Biltin 20 mg এর কাজ-Biltin 20 এর কাজ কি সেই সম্পর্কে বিস্তারিত।
বিলটিন ২০ মি.গ্রা. এর কাজ কি -  Biltin 20 এর কাজ কি -
আমার এই আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনি আরো ভালো করে জানতে পারবেন কখন এই সমস্যার চিকিৎসা করতে হয়।

Biltin 20 mg এর কাজ কি - বিলটিন ২০ মি.গ্রা. এর কাজ কি

Biltin 20 mg হল একটি এলার্জির ঔষধ। এলার্জি জনিত কারণে রোগীর যত গুলো উপসর্গ দেখা থাকে এই সব গুলো উপসর্গের জন্য এই বিলটিন ঔষধ সেরা। এই Biltin ট্যাবলেট তৈরি কৃত কোম্পানির নাম এস কে এফ ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড কোম্পানি। এই ঔষধের জেনেরিক বা গ্রুপ নাম হলো বিলাস্টিন।

এই ঔষধ বাজারে যেকোন দোকানে সিরাপ বা ট্যাবলেট আকারে পাওয়া যায়। তবে বিলটিন ট্রাবলেট এই ঔষধ খেলে মানুষ মোটা হয়ে যায়। বিভিন্ন ধরনের এলার্জি রয়েছে যেগুলোর বিরুদ্ধে এই বিলটিন ট্যাবলেট কাজ করে থাকে। এই বিলটিন ট্যাবলেটের কিছু কাজ নিচে দেওয়া হল ---
  • এজমা হলে।
  • একজিমা হলে ।
  • এলার্জির কারণে চুলকানি হলে।
  • ঋতু পরিবর্তনের সময় এলার্জি হলে ।
  • এলার্জি কারণে চোখ দিয়ে পানি পড়লে ।
  • এলার্জি জনিত কারণে কাশি বা হাচি হলে।
  • এলার্জি জনিত কারণে চোখ লাল হয়ে গেলে ।
  • এলার্জির কারণে ত্বকে ফুসকুড়ি এবং লালচে ভাব হলে।
  • এলার্জি জনিত কারণে নাক দিয়ে পানি পড়া অথবা কাশি হলে।

Biltin 20 mg খাওয়ার নিয়ম

বিলটিন ট্যাবলেট সাধারণত ১২ বছরে কম বয়সী দের জন্য নির্দেশিত নয়। অর্থাৎ ১২ বছরের অধিক বয়সী এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য এই ট্যাবলেট প্রতিদিন একটি করা যেতে পারে। তবে এই ঔষধ সেবনের পূর্বে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। আপনি এই ঔষধ খাওয়ার যে কোন সময় খেতে পারেন অর্থাৎ খাওয়ার আগেও খেতে পারেন আবার পরেও খেতে পারেন।তবে চিকিৎসকের মতে খাওয়ার পরে ঔষধ সেবন করাই উত্তম।

এলার্জি, রাইনাইটিস, মূত্রাশয় এছাড়াও রাইনোকনজজ্ঞিটি ভাইটিসের লক্ষণ থেকে মুক্তির জন্য এই Biltin 20 mg ট্যাবলেট নির্দেশিত করা হয়। তবে একটি ডোজে সর্বাধিক প্রস্তাবিত ২০ মিলিগ্রাম ট্যাবলেট নির্দেশিত তবে এর মাত্রা অতিক্রম করা উচিত নয়। যদি কোন ডোজ মিস হয়ে যায় তবে পরবর্তী ডোজ নেওয়া উচিত। আপনাকে এই ঔষধ প্রয়োজনে কোন পরিমাণে সেবন করতে হবে কারন আপনি যদি এই ঔষধ অতিরিক্ত মাত্রায় করেন তাহলে এটা আপনার ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

এই ঔষধ একবার খালি পেটে পানি দিয়ে গিলে ফেলতে হবে। মুখে ব্যবহৃত ট্যাবলেট টি শুধুমাত্র মৌখিকভাবে ব্যবহার করতে হবে। এটি অবশ্যই মুখে রাখা উচিত। কারণ এর লালা মুখের ভিতর খুব সহজে ছড়িয়ে পড়ে এবং খুব অল্প সময়ে গ্রাস করা যায়।তবে ৬ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের জন্য এই সমস্যার জন্য দশ মিলিগ্রাম ঔষধ প্রাথমিক অবস্থাতে খাওয়ানো যেতে পারে। তবে আপনার অবশ্যই এই ঔষধ শিশুদের খাওয়ানোর আগে সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে।

তবে শিশুদের খাওয়ানোর আগে ট্যাবলেটটি এক চামচ পানিতে ভালো ভাবে দ্রবীভূত অর্থাৎ ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।কোন প্রকার ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না এই জন্য অবশ্যই আপনাকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।বিভিন্ন কারণে ঔষধের মাত্রার পরিবর্তন হতে পারে। তবে চিকিৎসক আপনাকে যেভাবে পরামর্শ দিয়েছে আপনি অবশ্যই সেই মোতাবেক ঔষধ গ্রহণ করুন।

আপনি অবশ্যই চিকিৎসকের নির্দেশনাবলি মেনে চলবেন। Biltin 20 mg খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আশা করি biltin 20 mg খাওয়ার নিয়ম নিয়ে আপনাদের কোনো স্যামসা থাকবে না । এই পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পরলে আশা করি বুঝতে পেরেছেন Biltin 20 mg খাওয়ার নিয়ম কি সেই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সমুহ।

Biltin 20 mg এর পার্শ্ব পতিক্রিয়া

মেডিকেল ট্রায়ালে বিলটিন পরিলক্ষিত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলো হল মাথা ব্যাথা, তন্দ্রাচ্ছন্য হওয়া এবং অবসাদ গ্রস্থ হওয়া। প্লাসেবো গ্রহণকারী রোগীদের ক্ষেত্রে এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলো দেখা গেছে। এ ছাড়া এর চেয়ে বেশি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা গেলে যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন ।

অতিরিক্ত সব কিছু স্বাস্থ্যর পক্ষে ক্ষতিকর তাই কোনো স্যামসা হলে আবহেলা না করে যত দ্রুত সম্ভব ডাক্তারের কাছে যাবেন । মনে রাখতে হবে নিজের অবহেলা তে সব চেয়ে বেশি স্যামসা সৃষ্টি হতে পারে । তাই নিজে সচেতন থাকুন এবং অন্যদের সচেতন থাকতে বলুন ।

Biltin 20 mg এর সর্তকতা

বিলটিন ২০ mg এর মাত্রা একমাত্র গাড়ি চালানোর দক্ষ তাকে প্রভাবিত করে না। তবে এই ঔষধ রোগীকে জানানো দরকার যে এই ঔষধ সেবন করলে ঘুম ঘুম ভাব অনুভব হতে পারে যা গাড়ি চালানো বা কোন যন্ত্র পরিচালনার দক্ষ থাকে প্রভাবিত করে থাকে। তাই বৃক্ক অকার্যকর এমন রোগীদের ক্ষেত্রে এই ঔষধের মাত্রা সমন্বয়ের প্রয়োজন নেই কারণ মানবদেহে বিলটিন এর মেটাবলিজম হয় না।

অর্থাৎ মূত্রের মাধ্যেমে বিলটিন প্রধানত নিষ্কাশিত হয়ে থাকে। তবে যকৃতের মাধ্যেমে এর খুব কম পরিমাণে নিস্কাসিত হওয়ার সুযোগ থাকে। এই জন্য বিলটিন রোগীদের যকৃতের কার্যকারীতা পরিবর্তন হলেও এর কোনো ক্লিনিকাল প্রভাব হই না বললেই চলে। Biltin 20 mg এর সর্তকতা আশা করি বুঝতে পেরেছেন আমরা এখন আলোচনা করলাম Biltin 20 mg এর সর্তকতা নিয়ে ।

Biltin 20 mg এর দাম

Biltin 20 mg এর দাম অনেকে জানতে চাচ্ছেন । Biltin 20 mg এর দাম নিয়ে অনেকের অনেক রকম মতামত থাকতে পারে। এ ছাড়া বাজার ভিন্ন হওয়াতে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন দাম থাকতে পারে । এবং Biltin 20 mg এর দাম সব সময় কম বেশি হতে পারে তাই আপনারা কেনার সময় নিম্ন দেওয়া দাম অনুযায়ী কিনবেন ।
  • Biltin 10 mg ট্যাবলেট এর প্রতি পিস এর দামঃ ১৩.০০ টাকা
  • Biltin 20 mg ট্যাবলেট এর প্রতি পিস এর দামঃ ১৫.০০ টাকা
  • আশা করি বুঝতে পেরেছেন Biltin 20 mg এর দাম কত সেই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য । এখন আমরা আলোচনা করলাম Biltin 20 mg এর দাম কত সেই তথ্য নিয়ে ।

শেষ কথা - Biltin 20 mg এর করণীয় কি

প্রিয় পাঠক আপনারা এতক্ষণ পড়ছিলেন Biltin 20 mg এর কাজ-Biltin 20 এর কাজ কি এই সম্পর্কে বিস্তারিত। আশা করি আমার আজকের এই পোষ্টটি পড়ে আপনার উপকারে আসবে। আমার এই ওয়েব সাইট এ আপনাদের জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন তথ্য নিয়ে বাংলা আর্টিকেল লিখে আসছি।

আমার এই পোষ্টটি যদি আপনার ভালো লাগে তাহলে আপনার বন্ধুর কাছে শেয়ার করতে পারেন। আর যদি নতুন কোনো বিষয়ে তথ্য জানতে চান তাহলে আমাদের কমেন্ট করে জানাতে পারেন। এতক্ষণ আমার এই পোষ্টটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবান। এবং নতুন নতুন তথ্য মুলক আর্টিক্যাল পেতে সব সময় আমাদের সাথে থাকবেন ধন্যবাদ ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

সাহারাব্লগ এর নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url

Click Here